বৃহস্পতিবার ভোর থেকে বাগেরহাট জেলায় ৭ দিনের লকডাউন

  • আপডেট টাইম : ২৩ জুন ২০২১, ১১:৪৩ অপরাহ্ণ
  • /
  • 60 বার পঠিত

বাগেরহাট জেলায় বৃহস্পতিবার ভোর থেকে ৭ দিনের লকডাউন ঘোষনা দেয়া হয়েছে। লকডাইন চলাকালে সব ধরনের যাত্রীবাহী গনপরিবহন ও নৌযানসহ দোকানপাট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠার বন্ধ থাকবে। জরুরী সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো খোলা থাকবে। দেশের আমদানী-রপ্তানী বানিজ্যের বিষয়টি প্রাধান্য দিয়ে মোংলা বন্দর এই লকডাউনের আওতা মুক্ত রাখা হয়েছে। তবে, মোংলা বন্দর জেটি ও পশুর চ্যানেলে নোঙ্গর করা জাহাজের নাবিকরা মোংলা বন্দরে নামতে পারবেনা। করোনা সংক্রমণের হার ৪০ থেকে ৭৩ শতাংশের মধ্যে ওঠানামা করায় বুধবার বিকালে জেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ সংক্রান্ত জেলা মনিটরিং কমিটির সভা শেষে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আজিজুর রহমান এসংক্রান্ত গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন।

 

 

 

 

বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক জানান, সাধারণ মানুষ স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করায় জেলায় করোনা সংক্রমনের হার আশংকাজনক হারে বেড়ে যাওয়ায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ সংক্রান্ত জেলা মনিটরিং কমিটির সভায় সর্ব সম্মত সিদ্ধান্তে ২৪ জুন থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত জেলায় ৭ দিনের লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে। লকডাউন চলাকালে ব্যক্তিগত যানবাহন থেকে শুরু করে সব ধরনের যাত্রীবাহী গণপরিবহন ও নৌযানসহ দোকানপাট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। কাঁচাবাজার, মুদিদোকান, হোটেল-রেস্তোরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত খোলা রাখা যাবে। হেটেল-রেস্তোরায় বসে খাওয়া যাবেনা। মসজিদে ৩ ফুট দূরত্ব মেনে ২০ জন পর্যন্ত মুসল্লী নামাজ আদায় করতে পারবেন। কোন সামাজিক, ধর্মীয় ও রাজনৈতিক অনুষ্ঠান লকডাউন চলাকালে করা যাবেনা। তবে, জরুরী সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো খোলা থাকবে। দেশের আমদানী-রপ্তানী বানিজ্যের বিষয়টি প্রাধান্য দিয়ে মোংলা বন্দর এই লকডাউনের আওতা মুক্ত রাখা হয়েছে।

 

 

 

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষকে করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। মোংলা বন্দর জেটি ও পশুর চ্যানেলে নোঙ্গর করা জাহাজের নাবিকরা মোংলা বন্দরে নামতে পারবেনা। জেলা প্রশাসক বাগেরহাট জেলায় করোনা সংক্রমণের হাত থেকে নিজে, পরিবারের সদস্যসহ সাধারণ মানুষকে বাঁচাতে লকডাউন চলাকালে সবাইকে ঘরে থাকার আহবান জানিয়ে আরো বলেন, লকডাউন না মানলে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে দন্ডিত করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *