ইউরোর কঠিন লড়াই শুরু আজ হারলেই বাড়ি ফেরার টিকিট

  • আপডেট টাইম : ২৬ জুন ২০২১, ০৩:২৫ অপরাহ্ণ
  • /
  • 62 বার পঠিত

ইউরো শেষ ১৬ দেশ চূড়ান্ত হওয়ার পর থেকেই সবচেয়ে বেশি আলোচনায় ইংল্যান্ড-জার্মানি। এই দুই দল এবার ইউরোর নকআউটে মুখোমুখি ২৯ জুন লন্ডনে। ফুটবল পণ্ডিতদের মতে, নকআউটে জার্মানি-ইংল্যান্ড হবে অলিখিত ফাইনাল। কারণ, এই ম্যাচটি অতীতের অনেক কিছু মনে করিয়ে দেয়।

 

 

 

আরও পড়ুন:

মহাকাশ স্টেশন থেকেই ইউরো দেখছেন নভোচারীরা

 

 

 

বিশেষ করে ২০১০ দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপে ১৬ দলের নকআউট পর্বে জার্মানির বিপক্ষে ২-১ গোলে ইংল্যান্ড পিছিয়ে ছিল। ইংল্যান্ডের ল্যাম্পার্ডের শট জার্মানির ক্রসবারের নিচে চুমু খেয়ে গোল লাইন পার হলেও বল বেরিয়ে আসে। টিভির পর্দায় রিপ্লেতে বারবার ঘুরিয়ে বিভিন্ন অ্যাঙ্গেলে দেখানো হয়েছিল, সেটি পরিষ্কার গোল ছিল। কিন্তু সহকারী রেফারি গোল বাতিল করেছিলেন। সেই ম্যাচে জার্মানি ৪-১ গোলে জিতেছিল। বিশ্ব ফুটবলের ইতিহাসে এই ঘটনাটি আজও ফুটবল দর্শক মুখে আলোচনা ওঠে। ভিডিও অ্যাসিসটেনস রেফারি পদ্ধতি চালু করার দাবিটা তখন আরো জোরালো হয়। ২০১৪ বিশ্বকাপের ফাইনালের আগে ফিফার সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনিওর সংবাদ সম্মেলনেও উঠেছিল ভিডিও অ্যাসিসটেনস রেফারি নিয়ে। এটা বাতিল হবে না চলবে।

 

 

 

Euro Cup 2020 Schedule & Fixture: Live Streaming, Indian Timing| Check All

 

 

 

২০১০ বিশ্বকাপের সেই জার্মানি-ইংল্যান্ড ম্যাচের আরো একটি ঘটনা ইতিহাসের পাতায় জ্বলে উঠছে। সেই ৫৫ বছর আগের কথা। ১৯৬৬ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের জেফ হার্স্টের শট ক্রসবারের নিচে লেগে গোল হলেও জার্মানি দাবি করে গোল হয়নি। রেফারি কথা বলে গোলের সিদ্ধান্ত দেননি। এসব নানা কারনেই জার্মানি-ইংল্যান্ড অন্যরকম মহারণ হয়ে ওঠে।

 

 

 

এবারের ইউরোতে শক্তিশালী ইতালি, বেলজিয়াম, নেদারল্যান্ডস নিজেদের গ্রুপে তিনটি করে ম্যাচ জিতে নকআউটে উঠে এসেছে। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল, অন্যতম ফেভারিট স্পেন এমনকি জার্মানিকেও কাঠখড় পুড়িয়ে নকআউট পর্বের টিকিট পকেটে ঢুকাতে হয়।

 

 

 

আরও পড়ুন:

গোল মিস করায় মোরাতাকে হুমকি!

 

 

 

ক্রিশিয়ানো রোনালদোর পর্তুগাল ইউরোর গত আসরের মতো এবারের আসরেও গ্রুপের তৃতীয় স্থান দখল করেই শেষ ষোলোয় উঠতে হয়েছে। ‘এফ’ গ্রুপে হাঙ্গেরির বুকে ছুরি মেরে ফ্রান্স, জার্মানি এবং পর্তুগাল উঠেছে ১৬ দলের তালিকায়। সবার চোখ ছিল এই ডেথ গ্রুপে।

 

 

 

কোন দল বাদ পড়বে তা নিয়ে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন পর্তুগালের কোচ ফার্নান্দোস স্যান্টোস, ২০১৪ বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন জোয়াকিম লো, ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সের কোচ দিদিয়ের দেশম একটি রাতও ঘুমাতে পারেনি। সেই দুশ্চিন্তার রাত গেলেও এখন নকআউটের দরজায় নতুন চিন্তুা যুক্ত হয়েছে।

 

ইউরোয় এবারই প্রথম নকাউটে ঢুকেছে অস্ট্রিয়া। ইউরোর দুই ফেভারিট দল বেলজিয়াম এবং পর্তুগাল মুখোমুখি। তবে তুলনামূলক বিচারে বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স পেয়েছে সহজ সুইজারল্যান্ডের মতো সহজ প্রতিপক্ষ। স্পেনের প্রতিপক্ষ লুকা মদ্রিচের ক্রোয়েশিয়া।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *